A Lalon singer Abdur Rab Fakir (আবদুর রব ফকির)

আবদুর রব ফকির লালনের ভাবশিষ্য। নিভৃতচারী এ শিল্পি লালনের গান করেন দীর্ঘদিন। কিন্তু প্রচার মাধ্যমে এসেছেন বছর কয়েক আগে। তিনি গান করেন লালনের আদিসুর ও ভাবে। এখানে আবদুর রব ফকিরের কন্ঠে লালনের অপ্রচলিত কিছু গান তুলে ধরা হলো। এ গানগুলো আবদুর রব ফকিরের মাধ্যমে মিডিয়ায় ওঠে আসে। লালনের আদি সুরের সাথে ফিউশন ধাচের গানগুলো সত্যি বিষ্ময়কর।

এ নীল মনিহার- লাকী আখন্দ

শৈশবেই সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন লাকী আখন্দ মাত্র ১৮ বছর বয়সে এইচ.এম.ভি. পাকিস্তানে সুরকার হিসেবে তালিকা ভুক্ত হন।
সুরকার হিসেবে আরো কাজ করেছেন এইচ. এম.ভি. ভারত এবং স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রেও। তারপর বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর নতুন উদ্যমে বাংলা গান নিয়ে কাজ শুরু করেন। তাঁর নিজের সুর করা গানের সংখ্যা তাঁর কথায় দেড় হাজারেরও বেশি।অসংখ্য কালজয়ী গানের স্রষ্টা লাকী আখন্দ। তাঁর গাওয়া ও সুরের উল্লেখযোগ্য গানগুলো হলো ‘এই নীল মণিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘আগে যদি জানতাম’, ‘আবার এলো যে সন্ধ্যা’, ‘মা-মনিয়া’, ‘কবিতা পড়ার প্রহর এসেছে’, ‘বিতৃষ্ণা জীবনে আমার’, ‘যেখানে সীমান্ত তোমার’, ‘ভালোবেসে চলে যেও না’, ‘লিখতে পারি না কোনো গান’, ‘কি করে বললে তুমি’ ইত্যাদি।বাঙলা গানের এ গুনি শিল্পি 2017 সালের 21 এপ্রিল মারা যান। ল্পির প্রতি প্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর স্ব-কন্ঠে নির্বাচিত কিছু গান তুলে ধরা হল।

Antore tusheri anol (অন্তরে তুষের অনল-ফাতেমা-তুজ-জোহরা- রাধারমন)

রাধারমনের এ গানটিকে অন্যভাবে গাওয়া হয়। একটি অন্তরা গাওয়া হয় না। ফাতেমা -তুজ-জোহরা সত্যিকারের গানটি তার অসাধারণ গায়কীকে তুলে এনেছেন। বাংলা গানের ভঙ্গদের কাছে লাইক কমেন্ট প্রত্যাশা করি।

লালনের অসাধারণ একটি মরমি গান, লালনের গানের বানীর সাথে শিল্পির গায়কী ও দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের অপূর্ব সম্মিলন!

লালনের  অসাধারণ একটি মরমি গান,না শুনলে মিস! লালনের গানের বানীর সাথে শিল্পির গায়কী ও দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের অপূর্ব সম্মিলন!